অসহায়ভাবে হার মানলো টাইগাররা

তৃতীয় দিনেই হারের দ্বারপ্রান্তে পৌঁছে গিয়েছিল টাইগাররা। হারতে পারতো তৃতীয় দিনেই। কিন্তু সাকিব আল হাসান ও নুরুল হাসান সোহানের ব্যাটিং দৃঢ়তায় হারের সময়টা পিছিয়েছে কেবল। চতৃর্থ দিনে এসে অসহায়ভাবে হার মানতে হলো অতিথিদের। স্বাগতিকরা সারলেন কেবল আনুষ্ঠানিকতা। দেশের ছেলেরা ৭ উইকেটে বড় ব্যবধানে হার মানল ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে।
 
খালেদ আহমেদ শুরুতে পেস ঝড় তুলে দ্রুত তিন উইকেট ফেলে দিলেও ব্যাট হাতে লড়ে গেছেন জন ক্যাম্পবেল (৫৮*) ও জার্মেইন ব্ল্যাকউড (২৬*)। চতুর্থ উইকেটে দুজনের হার না মানা ৭৯ রানের দুরন্ত পার্টনারশিপে জয় ছিনিয়ে নিয়েছে ক্যারিবিয়ানরা। ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৩ উইকেট হারিয়ে ৮৮ রান তুলে পৌঁছে গেছে জয়ের বন্দরে।
 
তার আগে ৩ উইকেটে ৪৯ রান নিয়ে চতুর্থ দিনের খেলা শুরু করে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। তৃতীয় দিন শেষে ২৮ রান নিয়ে ক্রিজে টিকে থাকেন ক্যাম্পবেল। ১৭ রান নিয়ে তাকে সঙ্গ দিয়ে যান ব্ল্যাকউড।
 
ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারের প্রথম বলে ফিরে যান ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েট (১)। দলীয় সংগ্রহ তখন ১ রান। সংগ্রহটা ৩ হতেই ওই ওভারের পঞ্চম বলে আউট হন রেমন রেইফার (২)। ৯ রানে চলে যান এনক্রুমাহ বোনার (০)। 
 
এ জয়ে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেল উইন্ডিজ। বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে মেন ইন মেরুন শিবির পেল মূল্যবান ১২ টি পয়েন্ট।
 
২৪৫ রানের থেমে যায় লাল-সবুজের প্রতিনিধিদের দ্বিতীয় ইনিংস। সফরকারীরা মাত্র ৮৩ রানের লিড পায়। জয়ের জন্য ক্যারিবিয়ানদের লক্ষ্য দাঁড়ায় মাত্র ৮৪ রান।
 
২৬৫ রানে থেমে যায় উইন্ডিজের দ্বিতীয় ইনিংস। স্বাগতিকদের লিড দাঁড়ায় ১৬২। এলোমেলো আর ছন্নছাড়া ব্যাটিংয়ের ষোল কলা পূর্ণ করে প্রথম ইনিংসে ১০৩ রানে গুটিয়ে যায় টাইগাররা। তবে ফিফটি হাঁকিয়েছিলেন সাকিব আল হাসান (৫১)।

সর্বশেষ সংবাদ

খেলা এর আরো খবর