‘লক্ষ্মীপূজা’ আজ

সনাতন ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম পূজা ধনসম্পদের দেবী ‘লক্ষ্মীপূজা’ আজ সন্ধ্যায়। ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে সারা দেশে লক্ষ্মী পূজা উদযাপন করা হচ্ছে। লক্ষ্মীর বাহন পেঁচা। বিষ্ণু রাম ও কৃষ্ণ রূপে অবতার গ্রহণ করলে, লক্ষ্মী সীতা ও রাধা রূপে তাদের সঙ্গিনী হন। কোজাগরী পূর্ণিমা রাতে দেবী লক্ষ্মী ধনধান্যে ভরিয়ে দিতে ভক্ত গৃহে আসেন। প্রাচীনকাল থেকেই রাজা-মহারাজা, ব্যবসায়ী থেকে শুরু করে সাধারণ গৃহস্থ অব্দি সবাই দেবী লক্ষ্মীর পূজা দিয়ে আসছেন। শারদীয় দুর্গোৎসব শেষে প্রথম পূর্ণিমা তিথিতে সনাতন ধর্মাবলম্বীরা এই পূজা করে থাকেন। সন্ধ্যায় মঠ মন্দির ছাড়াও প্রায় প্রতিটি হিন্দু পরিবারে লক্ষ্মী পূজা করা হবে। মা আসবেন নৌকায় ধন সম্পদে পূর্ণবান হয়ে। অন্নপূর্ণার আলতা রাঙা পায়ের চিহ্ন আঁকা হবে ঘরে ঘরে। আজ হিন্দু নারীও পুরুষেরা উপবাস ব্রত পালন করছেন। ফুল ফল মিস্টি নৈবেদ্য দিয়ে আরাধনা করবেন লক্ষ্মী মায়ের। দেবেন পুস্পাঞ্জলি। লক্ষ্মীপূজা পূজা কোজাগরী লক্ষ্মী পূজা নামেও পরিচিত। কোজাগরী অর্থ ‘কে জেগে আছো?’। হিন্দুদের বিশ্বাস, এ রাতে মা লক্ষ্মী ধন-সম্পদ দিতে যেকোনো সময় ঘরের দ্বারে এসে ‘কো জাগর্তি’ বলে ডাক দেন। জেগে থাকা মানুষেরাই এ ধন লাভের অধিকারী হয় বলে ব্রতকারীরা এজন্য সারা রাত জেগে থাকেন মায়ের ডাকের প্রতীক্ষায়। লক্ষ্মীপূজা উপলক্ষে রাজধানীর ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দিরসহ সকল মন্দির ও বিভিন্ন এলাকায় ঘরোয়া পরিবেশে বিভিন্ন ধর্মীয় কর্মসূচি আয়োজন করা হয়েছে।

সর্বশেষ সংবাদ