প্রতিটি হত্যার জবাব সরকারকে দিতে হবে: রিজভী

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, বিএনপির শান্তিপূর্ণ আন্দোলন দমাতে বেছে বেছে নেতাকর্মীদের হত্যা করছে সরকার। সরকারের নির্দেশেই বাঞ্ছারামপুরে ছাত্রদল নেতা নয়নকে গুলি করে হত্যা করেছে পুলিশ। সরাসরি গায়ে বন্দুক ঠেকিয়ে গুলি করে হত্যা করা হয় নয়নকে। তিনি বলেন, এর আগেও ভোলার নুরে আলম, আব্দুর রহিম, নারায়ণগঞ্জের শাওন প্রধান এবং মুন্সীগঞ্জের শাওন, যশোরের আব্দুল আলিমকে হত্যা করা হয়েছে। প্রতিটি হত্যার জবাব শেখ হাসিনা সরকারকে দিতে হবে। বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ৫৮তম জন্মদিন উপলক্ষে আজ রোববার নয়াপল্টনে জিয়া পরিষদের উদ্যোগে শীতবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব এসব কথা বলেন। রিজভী বলেন, ‘কর্তৃত্ববাদী শেখ হাসিনার মসনদ এখন ভেঙ্গে পড়ার উপক্রম। দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা দেউলিয়া হয়ে গেছে। সারা দেশের মানুষ প্রতিবাদ বিক্ষোভে ফেটে পড়েছে।বিএনপির সমাবেশে সাধারণ মানুষের ঢল নামছে। ফ্যাসিস্ট সরকার বুঝতে পেরেছে-তারা আর টিকে থাকতে পারবে না। তাই রক্তের হোলি খেলায় মেতে উঠেছে তারা।’ বেছে বেছে বিএনপির তরুণ নেতাদের হত্যা করা হচ্ছে উল্লেখ করে বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘জনপদের পর জনপদ তারা রক্তে রঞ্জিত করছে। কিন্তু নেতাকর্মীদের হত্যা করে সরকারের শেষ রক্ষা হবে না। এই সরকারের পতন ছাড়া জনগণ রাজপথ ছাড়বে না। রাজপথেই সকল হত্যার জবাব দেওয়া হবে।’ এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন-জিয়া পরিষদের চেয়ারম্যান ডা. আব্দুল কুদ্দুস, মহাসচিব প্রফেসর এমতাজ হোসেন, আবুল খায়ের ভুইয়া, বিএনপির স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরফত আলী সপু, অধ্যাপক আমিনুল ইসলাম, অধ্যক্ষ নজরুল ইসলাম, ডা. জাহিদুল কবিরসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

সর্বশেষ সংবাদ

রাজনীতি এর আরো খবর