বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগী
রাজপথ দখলের মধ্য দিয়ে সরকার বিদায় করবো

দলের নেতাকর্মীদের রাজপথ দখলের আহ্বান জানিয়ে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আমাদেরকে রাজপথ দখল করতে হবে। রাজপথে দখলের মধ্য দিয়ে এই সরকার বিদায় করে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করবো। শেখ হাসিনা সরকারকে বলতে চাই, অবিলম্বে পদত্যাগ করুন। আপনাদেরকে এই মুহূর্তে পদত্যাগ করে নিরপেক্ষ সরকারের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর করতে হবে। সংসদ ভেঙে দিতে হবে। নতুন নির্বাচন কমিশন গঠন করতে হবে। নতুন নির্বাচন দিয়ে সংসদ ও সরকার গঠন করতে হবে। 
 
নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে বৃহস্পতিবার এক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মির্জা ফখরুল এসব কথা বলেন। জ্বালানি তেলের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধি, বিদ্যুতের ভয়াবহ লোডশেডিং এবং সকল পণ্যের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ বিএনপি এ প্রতিবাদ সমাবেশের আয়োজন করে। ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির আহ্বায়ক আবদুস সালাম সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন।
 
মির্জা ফখরুল বলেন, তরুণ সমাজই দেশকে স্বাধীন করেছে, আজকে আবারও এই তরুণ সমাজকে জেগে উঠতে হবে। তরুণকে নতুন করে দেশে স্বাধীন করতে হবে। সেই স্বাধীনতা হবে গণতন্ত্রের। নতুন বাংলাদেশ নির্মাণ করবো আমরা তারেক রহমানের নেতৃত্বে।
 
তিনি বলেন, সংগ্রাম শুরু হয়েছে, লড়াই শুরু হয়েছে। এই লড়াই আমাদের বেঁচে থাকার লড়াই। এই লড়াই বিএনপির নয়, তারেক রহমানের নয়, বাংলাদেশের ১৮ কোটি মানুষের বাঁচা-মরার লড়াই। আমাদের লড়াই শরিক হতে হবে, আমাদের ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে। এই লড়াইয়ের মধ্যে দিয়ে আমরা ফ্যাসিস্ট, দানবীয়, মাফিয়া সরকারকে পরাজয়ের মধ্য দিয়ে সত্যিকার অর্থে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করতে পারব।
 
এসময় তিনি বলেন, শুক্রবার উপজেলা পর্যায়ে সমাবেশ আছে। আগামী ২২ তারিখ থেকে আমরা সারা দেশে ছড়িয়ে পড়ব। প্রত্যেকটি উপজেলায়  শন্তিপূর্ণ সমাবেশে করে ঐক্যবদ্ধ লড়াইয়ের মধ্য দিয়ে এই সরকারকে পরাজিত করতে বাধ্য করব।
 
সঞ্চালনায় ছিলেন ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির সদস্য সচিব আমিনুল হক ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সদস্য সচিব রফিকুল আলম মজনু। বক্তব্য দেন বিএনপির সিনিয়র নেতারা।

রাজনীতি এর আরো খবর