শিক্ষার্থীকে হত্যা: শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ে বিক্ষোভ

দুর্বৃত্তের ছুরিকাঘাতে ক্যাম্পাসের অভ্যন্তরে ছুরিকাঘাতে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) শিক্ষার্থী বুলবুলের মৃত্যুর প্রতিবাদ জানিয়ে বিক্ষোভ মিছিল করেছে তার সহপাঠী ও সাধারণ শিক্ষার্থীরা। সোমবার (২৫ জুলাই) রাত ১০টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের গোল চত্বর থেকে এ বিক্ষোভ মিছিল শুরু করে ক্যাম্পাসের গুরুত্বপূর্ণ সড়কসমূহ প্রদক্ষিণ করে বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটকে অবস্থান নেয় শিক্ষার্থীরা। এরপর উপাচার্য ফরিদ উদ্দিন আহমেদের অনুরোধে রাত ১২টার দিকে আন্দোলন থেকে সরে আসেন শিক্ষার্থীরা। এ সময় শিক্ষার্থীরা ‘আমার ভাই মরলো কেন, প্রশাসন জবাব চাই’, ‘বিচার বিচার বিচার চাই, বুলবুল হত্যার বিচার চাই’, ‘জবাব তোমার দিতে হবে, নইলে গদি ছাড়তে হবে’, ‘এক হও এক হও, সাস্টিয়ান সাস্টিয়ান’ ইত্যাদি স্লোগানে ক্যাম্পাস মুখরিত করেন। এই প্রতিবেদন লেখার আগ পর্যন্ত বিক্ষোভকারী শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অফিসের সামনে অবস্থান গ্রহণ করেছে শিক্ষার্থীরা। পাশাপাশি, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ইশরাত ইবনে ইসমাইনের সঙ্গে শিক্ষার্থীদের চলেছে আলোচনা। এ বিষয়ে একাধিক বিক্ষোভকারী শিক্ষার্থী জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ের নিরাপত্তা নিয়ে অনেক আগে থেকেও প্রশ্ন উঠেছে। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন কোন বিষয়ে গুরুত্ব দেন না। এর প্রেক্ষিতে ক্যাম্পাসে অনিরাপদ পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। আমাদের ক্যাম্পাসে সার্বক্ষণিক নিরাপত্তা চাই। এসময় বুলবুলের হত্যাকারীদের অবিলম্বে আটক করে শাস্তি নিশ্চিতের দাবি জানান তারা। এর আগে, সোমবার (২৫ জুলাই) সন্ধ্যা সাতটার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের গাজীকালুর টিলায় দুর্বৃত্তের ছুরিকাঘাতে আহত ও অজ্ঞান হয়ে যান বুলবুল আহমেদ। পরবর্তী বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থী তাকে উদ্ধার করে বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিকেলে নিয়ে যান। সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসকরা সিলেটের এম এ জি ওসমানি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরের পরামর্শ দেন। পরে ওই হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

খুন ও সন্ত্রাস এর আরো খবর