বাংলাদেশ সীমান্তে গোলা পড়ায় মিয়ানমারের দুঃখ প্রকাশ

মিয়ানমারে গত দুই মাস ধরে চলা সংঘর্ষের প্রভাব বাংলাদেশে পড়ায় আনুষ্ঠানিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করেছে মিয়ানমার। এ সময় সীমান্তে অনুপ্রবেশ ও মাদক পাচার রোধে একমত পোষণ করেছে মিয়ানমারের বর্ডার গার্ড পুলিশ (বিজিপি) ও বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। রোববার (৩০ অক্টোবর) বিকেলে বাংলাদেশের প্রতিনিধিদলের প্রধান বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল শেখ খালিদ ইফতেখার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। বিজিবির সদর দপ্তর সূত্রে থেকে জানা গেছে, সীমান্তের এ পরিস্থিতি নিয়ে শুরু থেকে দুই দেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর মধ্যে নানান পর্যায়ে যোগাযোগ চলছিল। এ নিয়ে বিভিন্ন সময়ে বিজিবির পক্ষ থেকে বিজিপির কাছে চিঠি পাঠানো হয়েছে। এরই প্রেক্ষিতে শুক্রবার (২৮ অক্টোবর) বিকেলে মিয়ানমার সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিজিপি) বৈঠকে বসতে রাজি হয়েছে মর্মে একটি চিঠি পাঠায়। পরে রোববার সকাল ১০টার দিকে দুই দেশের প্রতিনিধি দলের মধ্যে বৈঠক শুরু হয়। সেটি শেষ হয় বেলা সাড়ে ৩টার দিকে। অধিনায়ক লে. কর্নেল শেখ খালিদ ইফতেখার জানান, নাফ নদীর সীমান্তে টেকনাফের শাহপরীর দ্বীপে রোববার সকাল ১০টার দিকে বিজিবির ‘সাউদান পয়েন্ট’-এর সম্মেলন কক্ষে দুই দেশের প্রতিনিধি দলের মধ্যে বৈঠক শুরু হয়। সেটি শেষ হয় বেলা সাড়ে ৩টার দিকে।

সর্বশেষ সংবাদ

পররাষ্ট্র-বাংলাদেশ এর আরো খবর