নিউইয়র্কে মেয়র আতিক
দিনে ২ হাজার মানুষ ঢাকায় আসে, ৭০ শতাংশ অভিবাসী

প্রতিদিন প্রায় দুই হাজার মানুষ ঢাকায় আসেন। তাদের মধ্যে ৭০ শতাংশ জলবায়ু অভিবাসী বলে মঙ্গলবার শুরু হওয়া যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে মেয়র মাইগ্রেশন কাউন্সিল (এমএমসি) লিডারশিপ শীর্ষক এক আন্তর্জাতিক বৈঠকে মন্তব্য করেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম। এ বৈঠকে বিশ্বের সাতটি শহরের মেয়র অংশগ্রহণ করেন। বৈঠকে ঢাকা উত্তর সিটি আগামী তিন বছরের জন্য লিডারশিপ অব এমএমসিতে অন্তর্ভুক্ত করার সিদ্ধান্ত গৃৃৃহীত হয়। মঙ্গলবার (১৭ মে) নিউইয়র্কের স্থানীয় সময় সকাল ১০টায় এ বৈঠক শুরু হয়। এতে তিনি আরও বলেন, অভিবাসীদের এই আগমন আমাদের পরিবেশ এবং পরিষেবা প্রদানের ক্ষমতার উপর অতিরিক্ত চাপ সৃষ্টি করে। তবে এটি অর্থনৈতিক উন্নয়নের একটি সুযোগও তৈরি করে যদি কর্মসংস্থান সৃষ্টি করা যায়, বিশেষ করে গ্রিন সেক্টরে। ডিএনসিসি মেয়র বলেন, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্লাইমেট ভালনারেবল ফোরামের সভাপতি ও গ্লাসগোতে কপ-২৬ এ জলবায়ু উদ্বাস্তু এবং জলবায়ু অভিবাসীদের জন্য জলবায়ু ন্যায়বিচার নিশ্চিত করার নির্দেশ দিয়েছেন। ঢাকা উত্তর সিটিও এক্ষেত্রে কাজ করে যাচ্ছে। এই সপ্তাহে আমি ইউএন মাইগ্রেশন এবং রিফিউজি এজেন্সির সাথে অংশীদারিত্বে অভিবাসী এবং শরণার্থীদের জন্য স্থানীয়ভাবে ভূমিকা রাখার আহবানে অন্যান্য মেয়রের সাথে নিউ ইয়র্ক সিটিতে এসেছি। তিনি বলেন, আমরা জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের সভাপতিকে ৭০টি স্থানীয় সরকারের প্রতিশ্রুতি প্রদান করছি যা অভিবাসীদের জীবনে পরিবর্তন আনবে এবং বিশ্বকে প্রতিশ্রুতি পূরণের পথে রাখবে। তিনি আরও বলেন, ঢাকা উত্তরের মেয়র হিসেবে, আমার আইএমআরএফ অঙ্গীকার হল শহুরে দরিদ্র জনগোষ্ঠীর জীবনযাত্রার মান উন্নয়ন। দরিদ্র জনগোষ্ঠীর মধ্যে জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে বাস্তুচ্যুতরা রয়েছে। এটি বিশেষ করে তাদের স্বাস্থ্যের উপর একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রভাব ফেলবে। কিন্তু আমার এই প্রতিশ্রুতির সঙ্গে এইচএমআরএফ দেশগুলোর কাছে আমাদের প্রস্তাবনা রয়েছে। সেগুলো হলো জাতীয় জলবায়ু, অভিবাসন এবং উন্নয়ন নীতিগুলোতে শহরগুলোকে জড়িত করা।

সর্বশেষ সংবাদ

প্রবাস খবর এর আরো খবর