এসএসসি-সমমানে পাসের হার ৯৩.৫৮ শতাংশ

২০২১ সালের মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) ও সমমানের পরীক্ষায় গড় পাসের হার ৯৩ দশমিক ৫৮ শতাংশ। গতবার এই পাসের হার ছিল ৮২ দশমিক ৮৭ শতাংশ।
 
এ বছর কারিগরি শিক্ষা বোর্ডে ৮৮ দশমিক ৪৯ শতাংশ এবং মাদ্রাসা বোর্ডে ৯৩ দশমিক ২২ শতাংশ শিক্ষার্থী পাস করেছে।
বৃহস্পতিবার (৩০ ডিসেম্বর) গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলনকেন্দ্রে সংযুক্ত হয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পরে একই স্থানে সংবাদ থেকে শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফলাফলের পরিসংখ্যান তুলে ধরেন।
 
সংবাদ সম্মেলনে দীপু মনি জানান, এ বছর মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) ও সমমানের পরীক্ষায় গড় পাসের হার ৯৩ দশমিক ৫৮ শতাংশ। গতবার এই পাসের হার ছিল ৮২ দশমিক ৮৭ শতাংশ। গতবারের চেয়ে এ বছর পাসের হার বেড়েছে ১০ দশমিক ৭১ শতাংশ।
 
এ বছর অংশগ্রহণকারী পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল ২২ লাখ ৪০ হাজার ৩৯৫ জন। এর মধ্যে পাস করেছেন ২০ লাখ ৯৬ হাজার ৬৪৬ জন শিক্ষার্থী। এবারে পাসের হারে এগিয়ে আছে ছাত্রীরা। এ বছর ১০ লাখ ৯৮ হাজার ৩০১ জন ছাত্রী পরীক্ষা দিয়েছে। এর মধ্যে পাস করেছে ১০ লাখ ৩৭ হাজার ৯১৮ জন ছাত্রী। ছাত্রীদের পাসের হার ৯৪ দশমিক ৫০ শতাংশ। 
 
অন্যদিকে ১১ লাখ ৪২ হাজার ৯৪ জন ছাত্র পরীক্ষায় অংশ নিয়ে পাস করেছে ১০ লাখ ৫৮ হাজার ৬২৮ জন। ছাত্রদের পাসের হার ৯২ দশমিক ৬৯ শতাংশ।  
 
শিক্ষামন্ত্রী আরও জানান, চলতি বছর সর্বোচ্চ পাসের হার ৯টি সাধারণ শিক্ষাবোর্ডে। ৯টি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডে পাস করেছে  ৯৪ দশমিক ৮ শতাংশ শিক্ষার্থী। এছাড়া কারিগরি শিক্ষা বোর্ডে ৮৮ দশমিক ৪৯ শতাংশ এবং মাদ্রাসা বোর্ডের ৯৩ দশমিক ২২ শতাংশ শিক্ষার্থী পাস করেছে। ৯টি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডের মধ্যে ঢাকা বোর্ডে পাসের হার ৯৩ দশমিক ১৫ শতাংশ। এই বোর্ডে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৪৯ হাজার ৫৩০ জন শিক্ষার্থী।
 
দিনাজপুর বোর্ডে পাসের হার ৯৪ দশমিক ৮০ শতাংশ। এ বোর্ডে জিপিএ-৫ পেয়েছে ১৭ হাজার ৫৭৮ জন শিক্ষার্থী।
 
ময়মনসিংহ শিক্ষাবোর্ডে পাসের হার ৯৭ দশমিক ৫২ শতাংশ। এ বোর্ডে জিপিএ-৫ পেয়েছে ১০ হাজার ৯৯ জন শিক্ষার্থী।
 
সিলেট বোর্ডে পাসের হার ৯৬ দশমিক ৭৮ শতাংশ। এ বোর্ডে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৪ হাজার ৮৩৪ শিক্ষার্থী।
 
এ বছর শতভাগ পাস করা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ৫ হাজার ৪৯৪ টি। অন্যদিকে শূন্য পাশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ১৮ টি।
 
সংবাদ সম্মেলনে এ সময় অন্যান্যের মধ্যে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন, শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সিনিয়র সচিব মো. মাহবুব হোসেন, কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব আমিনুল ইসলাম খান, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব হাসিবুল আলম উপস্থিত ছিলেন।
 
শিক্ষামন্ত্রী সংবাদ সম্মেলনের আগে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলনকেন্দ্রে সংযুক্ত হয়ে আনুষ্ঠানিক ভাবে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশেল পাশাপাশি প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষার্থীদের মধ্যে বিনামূল্যে শিক্ষাবর্ষের পাঠ্যপুস্তক বিতরণ কার্যক্রমেরও উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
 
প্রথমে আনুষ্ঠানিকভাবে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশ করেন প্রধানমন্ত্রী। ফল প্রকাশের আগে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলনকেন্দ্রে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষে ৯টি সাধারণ শিক্ষাবোর্ড, মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যানদের কাছ থেকে ফলাফলের পরিসংখ্যান গ্রহণ করেন। পরে প্রধানমন্ত্রী বিনামূল্যে বই বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন।
 
বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলনকেন্দ্রে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষে মাধ্যমিক ও প্রাথমিক স্তরের কয়েকজন শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন। পরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দিক-নির্দেশনামূলক বক্তব্য দেন।
 
অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি, শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী (নওফেল), প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন।
 
এ সময় প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন, শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সিনিয়র সচিব মো. মাহবুব হোসেন, কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব আমিনুল ইসলাম খান, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব হাসিবুল আলম উপস্থিত ছিলেন।
 
এসএসসি পরীক্ষার ফল জানা যাবে যেভাবে
 
এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল প্রকাশ করলেন প্রধানমন্ত্রী
 
শুরু হলো বই বিতরণ
 
চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ডে পাসের হার ৯১.১২ শতাংশ 

শিক্ষা এর আরো খবর