আজ জাতীয় বস্ত্র দিবস

জাতীয় বস্ত্র দিবস আজ শনিবার। এবারের প্রতিপাদ্য 'বস্ত্র খাতের বিশ্বায়ন-বাংলাদেশের উন্নয়ন'। এ উপলক্ষে বাণী দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দিবসটি উপলক্ষে বিভিন্ন কর্মসূচি নিয়েছে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়। এর মধ্যে আছে- বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা, বস্ত্রশিল্পের বিশেষ অবদানের জন্য সম্মাননা প্রদান। এ ছাড়াও বস্ত্রশিল্পের গুরুত্ব তুলে ধরে বিশেষ ক্রোড়পত্র প্রকাশ করা হয়েছে জাতীয় দৈনিকগুলোয়। ২০১৯ সাল থেকে প্রতিবছর ৪ ডিসেম্বর জাতীয়ভাবে দিবসটি পালিত হচ্ছে।
 
বাণীতে রাষ্ট্রপতি বলেছেন, বস্ত্রশিল্প দেশের অর্থনীতির অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ চালিকাশক্তি। স্বাধীনতার পর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিভিন্ন পদক্ষেপ নেওয়ার মাধ্যমে এ খাতকে সুসংহত ও গতিশীল করার উদ্যোগ নেন। বর্তমানে দেশের মোট রপ্তানি আয়ের সিংহভাগ বস্ত্রশিল্প থেকে অর্জিত হচ্ছে।
 
প্রধানমন্ত্রী তার বাণীতে বলেছেন, দেশের বস্ত্রশিল্পের ইতিহাস সুপ্রাচীন এবং গৌরবময়। এ খাত দেশের অর্থনীতি, সমাজ ও সংস্কৃতির অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ হিসেবে ভূমিকা রেখে চলেছে।
 
জানা গেছে, আজ সকালে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রার মাধ্যমে দিবসের কর্মসূচি শুরু করা হবে। এতে নেতৃত্ব দেবেন বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী এবং শ্রম প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান। শোভাযাত্রা শেষে ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে সম্মাননা অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন তারা। করোনাকালে বস্ত্র খাতে বিশেষ অবদানের জন্য এ বছর সাতটি সংগঠনকে সম্মাননা দেওয়া হচ্ছে।
 

সর্বশেষ সংবাদ