আনসার বিদ্রোহ
চাকরি পুনর্বহালসহ সুযোগ-সুবিধা দিয়ে রিট নিষ্পত্তি

১৯৯৪ সালে আনসার বিদ্রোহের অভিযোগ থেকে খালাস পাওয়া রিটকারী ২ হাজার ৩৬৩ জন আনসার সদস্যদের মধ্যে যাদের বয়স ও শারীরিক সক্ষমতা আছে তাদের চাকরিতে পুনর্বহালসহ কিছু সুযোগ-সুবিধা দিয়ে রিট নিষ্পত্তি করে দিয়েছেন আপিল বিভাগ। আজ মঙ্গলবার প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীর নেতৃত্বে তিন সদস্যের আপিল বেঞ্চ এ রায় দেন। আদালতে আবেদনকারীদের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী ব্যারিস্টার অনীক আর হক। আনসার ভিডিপি মহাপরিচালকের পক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন ও অ্যাডভোকেট কামরুল হক সিদ্দিকী, কামাল উল আলম। এ বিষয়ে ব্যারিস্টার অনীক আর হক বলেন, আদালত কিছু পর্যবেক্ষণ দিয়ে রিট নিষ্পত্তি করে দিয়েছেন। আপিল বিভাগ কী সুযোগ সুবিধা দিয়েছেন তা পূর্ণাঙ্গ রায়ে জানা যাবে। রায়ের পর আইনজীবীরা জানিয়েছিলেন, চাকরিচ্যুত আনসারদেরকে চাকরিতে পুনর্বহালের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। তবে যাদের শারীরিক-মানসিক সক্ষমতা আছে তারাই চাকরি ফেরত পাবেন। কিন্তু যাদের সক্ষমতা নেই তারা যতদিন চাকরিতে ছিলেন তাদেরকে ততদিনের পেনশন সুবিধা দিতে বলা হয়েছে। বিভিন্ন দাবি-দাওয়া নিয়ে ১৯৯৪ সালের ৩০ নভেম্বর আনসার বাহিনীর সদস্যদের মধ্যে অসন্তোষ দেখা দেয়। যা পরে বিদ্রোহে রূপ নেয়। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিভিন্ন সংস্থার সহযোগিতায় ওই বছরের ৪ ডিসেম্বর বিদ্রোহ নিয়ন্ত্রণ করা হয়।

সর্বশেষ সংবাদ

আইন আদালত এর আরো খবর