মুদ্রানীতি ঘোষণা হচ্ছে আজ

অর্থবছর ২০২২-২৩ এর জন্য মুদ্রানীতি বৃহস্পতিবার (৩০ জুন) বিকেল ৩টায় ঘোষণা করবেন বাংলাদেশ ব্যাংক গভর্নর ফজলে কবির। ব্যাংকের জাহাঙ্গীর আলম কনফারেন্স হলে নতুন এই মুদ্রানীতি ঘোষণা করা হবে। এতে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর, হেড অব বিএফআইইউ ও নির্বাহী পরিচালকরা উপস্থিত থাকবেন।      
 
বুধবার (২৯ জুন) বাংলাদেশ ব্যাংকের পক্ষ থেকে এ তথ্য জানানো হয়েছে।
 
মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণের বড় চ্যালেঞ্জের মধ্যেই এবার মুদ্রানীতি ঘোষণা করতে যাচ্ছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। বর্তমান গভর্নর ফজলে কবির ঘোষিত এটাই শেষ মুদ্রানীতি। কারণ আগামী ৩ জুলাই তার মেয়াদ শেষ হবে। করোনার কারণে গত দুই বছর ওয়েবসাইটে মুদ্রানীতি প্রকাশ করলেও এবার তা আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করবে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।
 
দিন দিন ডলারের বিনিময় হার ঊর্ধ্বমুখী, নানা পণ্যের চড়া দাম, গ্যাসের দাম বেড়েছে। এর সঙ্গে দেশে বন্যা পরিস্থিতির ক্ষয়ক্ষতি। সব মিলিয়ে মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণের চ্যালেঞ্জ নিয়েই ঘোষিত হবে মুদ্রানীতি।
 
মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণ ও কাঙ্ক্ষিত প্রবৃদ্ধি অর্জনের মধ্যে ভারসাম্য রাখতে কেন্দ্রীয় ব্যাংক মুদ্রানীতি প্রণয়ন ও প্রকাশ করে। দেশের আর্থিক ব্যবস্থাপনায় মুদ্রানীতি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এর মাধ্যমে অভ্যন্তরীণ ঋণ, মুদ্রা সরবরাহ, অভ্যন্তরীণ সম্পদ, বৈদেশিক সম্পদ কতটুকু বাড়বে বা কমবে এর একটি পরিকল্পনা তুলে ধরা হয়।
 
কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানান, সরকার ব্যাংক ঋণের সুদহার নির্ধারণ করে দিয়ে রেখেছে। ডলারের দামও ব্যাংকগুলোর কাছে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। প্রস্তাবিত বাজেটে সরকার ব্যাংক খাত থেকে এক লাখ কোটি টাকার বেশি ঋণ নেওয়ার লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করেছে। ফলে মুদ্রানীতিতে বৈচিত্র্য দেখানোর কিছু নেই।
 
নতুন মুদ্রানীতি প্রসঙ্গে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের প্রধান অর্থনীতিবিদ মো. হাবিবুর রহমান জানান, মুদ্রানীতিতে মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণের বিষয়টি বেশি জোর দেওয়া হচ্ছে। এজন্য যা যা করা দরকার আমরা তা করব। আগামী ৩০ জুন মুদ্রানীতি ঘোষণার লক্ষ্য নিয়ে আমরা প্রস্তুতি নিয়েছি।
 
প্রস্তাবিত ২০২২-২৩ অর্থবছরের বাজেটে মূল্যস্ফীতি ৫.৬ শতাংশে রাখার কথা বলেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। কিন্তু চলতি বছরের মে মাসে সার্বিক মূল্যস্ফীতি ৭.৪২ শতাংশে দাঁড়িয়েছে।

সর্বশেষ সংবাদ

সারাদেশ এর আরো খবর