কালিয়াকৈরে বাসচাপায় নিহত বেড়ে ৫

গাজীপুরের কালিয়াকৈরে এলাকায় যাত্রীবাহী বাসচাপায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে পাঁচজনে। এদের মধ্যে ঘটনাস্থলে চালকসহ দুইজন, হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনজন মারা গেছেন। শনিবার (৩০ জুলাই) রাত পৌনে ১১টার দিকে কালিয়াকৈরের মাকিষবাথান টিএনটি এলাকায় যাত্রীবাহী বাস ব্যাটারিচালিত অটোরিকশাকে চাপা দিলে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন- অটোরিকশাচালক টাঙ্গাইল জেলার ভূঞাপুর থানার শেখ বাড়ি গ্রামের আয়ুব আলীর ছেলে নজরুল ইসলাম (২৭), বরগুনা সদর থানার আংগারপাড়া গ্রামের মমিন উদ্দিন সিকদারের ছেলে মেহেদী হাসান (৪৪), গাজীপুরের কালিয়াকৈরে থানার হিজলতলী গ্রামের মৃত আজিম উদ্দিনের ছেলে আতিকুল ইসলাম (৪২), একই উপজেলার লতিফপুর গ্রামের বাবুল মিয়ার ছেলে সাইদুল ইসলাম রুবেল (২৭) এবং যশোর জেলার মাগুরা থানার দহর গ্রামের আতাউর রহমানের ছেলে শাহিন উদ্দিন (২৮)। কালিয়াকৈর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবদুল বাশার ও উপ-পরিদর্শক (এসআই) রাহাত আকন্দ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তারা জানান, শনিবার রাত পৌনে ১১টার দিকে কালিয়াকৈরে থেকে চন্দ্রার উদ্দেশে ছেড়ে আসা ইতিহাস পরিবহনের একটি বাস কালিয়াকৈর-চন্দ্রা সড়কের মাকিষবাথান এলাকার বটতলায় পৌঁছালে বিপরীত দিক আসা যাত্রীবাহী ব্যাটারিচালিত অটোরিকশাকে চাপা দেয়। বিকট শব্দে অটোরিকশাটি দুমড়েমুচড়ে রাস্তার পাশে পড়ে যায়। এ ঘটনায় তাৎক্ষণিক অটোরিকশার চালকসহ আরও একজন যাত্রী মারা যান। আহত হন আরও তিনজন। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে কালিয়াকৈরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে গেলে সেখানে একজন এবং অপর দুই যাত্রীকে শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মেমোরিয়াল কেপিজে হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করানো হয়। সেখানে একজন মারা যান। অপরজনের অবস্থা গুরুতর হলে তাকে নিয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে মারা যান তিনি। ঘাতক ইতিহাস পরিবহনের বাসটি জব্দ করা হয়েছে। তবে চালক পালিয়ে গেছে। আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

সর্বশেষ সংবাদ

দুর্ঘটনা এর আরো খবর