খেলাসর্বশেষ

ফিলিস্তিনি শিশুদের জায়গায় আমারও হতে পারত: ফুটবলার বিশ্বনাথ

বসুন্ধরা কিংসের অনুশীলন শেষ করে বিশ্রামে ছিলেন ফুটবলার বিশ্বনাথ ঘোষ

ফিলিস্তিনি বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের দ্বিতীয় রাউন্ডে পৌঁছাতে পেরে ভালো লাগছে।

ফিলিস্তিনি শিশুর

তবে মোবাইল ফোন হাতে নিয়ে তিনি ফিলিস্তিনে ইসরায়েলের হামলায় শিশু হত্যার সাক্ষী হন। এসব ছবি দেখে এবং খবর পড়ে বিশ্বনাথের মন ভারী হয়ে ওঠে।

বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে অস্ট্রেলিয়া, লেবানন ও ফিলিস্তিনের বিপক্ষে ম্যাচ খেলতে হবে বাংলাদেশকে। ফিলিস্তিনি হাসপাতালে বোমাবর্ষণ করছে ইসরাইল। নারী ও শিশুরা সবাই বেছে বেছে হত্যার শিকার। রক্তে ভেজা শিশু শুয়ে আছে, রক্তে ভেজা শিশু কাঁদছে প্রাণের জন্য। শিশুটির পুরো পরিবার মারা গেছে। এই শিশুদের দেখভাল করবে কে? এই ছবিগুলো বিশ্বনাথকে কাঁদায়।

গত মঙ্গলবার ফিফা বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের রাউন্ড-১ খেলায় মালদ্বীপকে ২-১ গোলে হারিয়ে আরেক ধাপ এগিয়েছে বাংলাদেশ। সেই ম্যাচের পর ফিলিস্তিনি পতাকা নিয়ে মাঠে ঘুরেছিলেন বিশ্বনাথ। বিশ্বনাথ যুদ্ধ বন্ধের নীরব আহ্বান জানালেন। কিন্তু সেই খেলার ভারতীয় ম্যাচ কমিশনার সুবোরাত আপত্তি জানালে বিশ্বনাথের কাছ থেকে ফিলিস্তিনের পতাকা কেড়ে নেওয়া হয়। বাফুফের মিডিয়া বিভাগ জানিয়েছে, ‘মালদ্বীপের মাঠে মালদ্বীপের বিপক্ষে বাংলাদেশের ম্যাচটি হলে অনেক মানুষ ফিলিস্তিনি পতাকা নিয়ে গ্যালারিতে আসেন। তাদের নেওয়া হয়নি। এখানে কেন খেলা হয়েছে তা বলতে পারব না।

ঢাকায় বাংলাদেশ-মালদ্বীপ ফিরতি ম্যাচে বসুন্ধরা কিংস গ্যালারিতেও ফিলিস্তিনি পতাকা নিয়ে যুদ্ধ বন্ধের আহ্বান জানানো হয়। খেলার শেষে বিশ্বনাথও তাই করেন। বিশ্বনাথ বলেন, মানবিক কারণে তিনি ফিলিস্তিনের পতাকা তুলেছেন।

ফুটবলার বিশ্বনাথ

বিশ্বনাথ বলেন, ‘কোন পরিকল্পনায় এটা করা হয়নি। খেলা শেষে আমরা গ্যালারি থেকে পতাকা নিয়ে চুপচাপ থাকি। আমি যুদ্ধ বন্ধের আহ্বান জানাই।

এখানে ধর্ম কোন বিষয় নয়। আমরা মানুষ, রক্ত ​​দিয়ে তৈরি মানুষ। মানবতা এখানে গুরুত্বপূর্ণ। আমরা মানবিক কারণে পতাকা নিয়েছি। পৃথিবীতে কে যুদ্ধ চায়? সাবাই এটা বন্ধ করতে চায়। আমিও চাই এটা বন্ধ হোক।

বিশ্বনাথ আরও বলেন, ‘খবরে শিশুদের রক্তাক্ত অবস্থায় দেখছি। বাড়িতে আমার দুই সন্তান আছে। যদি এমন হতো। আপনার সন্তান যদি এমন পরিস্থিতিতে পড়ে তাহলে আপনার কেমন লাগবে? আমার খারাপ লাগছে, তাই একজন মানুষ হিসেবে আমি মনে করি যুদ্ধ বন্ধ হওয়া উচিত। পুতুলের জন্য কাঁদছে না। রক্তে ভেজা শিশুর এমন আর্তনাদ বিশ্বের যে কারো হৃদয়কে ধাক্কা দেবে।

আরও পড়ুন

ঢাকায় পা রেখেছেন রোনালদিনহো

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button