রাজনীতিসর্বশেষ

নির্বাচনী সরকারের নির্ধারিত সময়ের পরে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন কমিশন যা দাবি করবে,সরকার তা দিতে বাধ্য

কর্মসূচি ঘোষণার পর অন্তর্বর্তীকালীন সরকারের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। এ কথা বলেছেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

সরকার

রোববার সচিবালয়ে প্রেস ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদির বলেন, নির্বাচনকালীন সরকার থাকতে পারে। গতবারের মতো এবারও নির্বাচনী সরকার রয়েছে। এটা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এখতিয়ার। প্রধানমন্ত্রী যদি মনে করেন যে নির্বাচনী মন্ত্রিসভা সংক্ষিপ্ত করা উচিত বা যেমন আছে, সেটা তাঁর বিশেষাধিকার।

তখন সাংবাদিকরা জানতে চান, আপনি ক্ষমতাসীন দলের সাধারণ সম্পাদক, এটাও আপনার জানা উচিত। এর জবাবে ওবায়দুল কাদির বলেন, এখন এ নিয়ে আলোচনার সময় নয়। কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে। তাহলে নির্বাচন কমিশন অনেক শক্তিশালী প্রতিষ্ঠানে পরিণত হবে। এরপর মন্ত্রীরা রুটিন ডিউটিতে যাবেন।

তখন মন্ত্রী বড় কোনো উদ্বোধন করতে পারবেন না। তাহলে তার কোনো উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ শুরু হবে না। নির্বাচন সংক্রান্ত সবকিছুই নির্বাচন কমিশন পরিচালনা করবে। যদি এসপি-ডিসি পরিবর্তনের প্রয়োজন হয়, তারাও তা করবে। ওবায়দুল কাদির বলেন, সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন কমিশন যা দাবি করবে, তার তা দিতে বাধ্য।

আরোও পড়ুন

বিএনপির দুই শতাধিক নেতাকর্মীকে আটক

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button