সর্বশেষখেলা

মিলারের সেঞ্চুরিতে দক্ষিণ আফ্রিকার দুইশো পেরোলো

বিশ্বকাপের দ্বিতীয় সেমিফাইনালে অস্ট্রেলিয়াকে ২১৩ রানের টার্গেট দিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা।

বিশ্বকাপের দ্বিতীয় সেমিফাইনালে অস্ট্রেলিয়াকে ২১৩ রানের টার্গেট দিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা। মিলারের সেঞ্চুরিতে দক্ষিণ আফ্রিকার দুইশো পেরোলো বৃহস্পতিবার (১৬ নভেম্বর) কলকাতার ইডেন গার্ডেন স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় প্রোটয়ারা।

দক্ষিণ আফ্রিকা

শুরুতে বিপর্যয়ে পড়লেও ডেভিড মিলারের সেঞ্চুরিতে লড়াকু সংগ্রহ পায় দক্ষিণ আফ্রিকা। ৪৯ ওভার ৪ বলে ২১২ রানে অলআউট হয় প্রোটয়ারা।

টস জিতে ব্যাট করতে নেমে দলীয় ৮ রানের মধ্যে দুই ওপেনার অধিনায়ক টেম্বা বাভুমা ও কুইন্টন ডি ককের উইকেট হারায় দক্ষিণ আফ্রিকা। বাভুমা ৪ বলৈ ০ ও ১৪ বলে ৩ রান করে আউট হন ডি কক।

দক্ষিণ আফ্রিকা

এরপর ক্রিজে আসা এইডেন মার্করাম ও রাসি ভ্যান ডার ডুসেন শুরুর চাপ সামাল দিয়ার চেষ্টা করতে ব্যর্থ হন। দলীয় ২২ রানে ২০ বলে ১০ রান করে আউট হন মার্করাম। তার আউটের পরই ফিরে যান ডুসেন। ৩১ বলে ৬ রান করেন তিনি। এরপর ক্রিজে আসা ডেভিড মিলারকে নিয়ে দেখেশুনে ব্যাট করতে থাকেন হেনরিখ ক্লাসেন।

দক্ষিণ আফ্রিকা

তবে ১৪তম ওভারে বৃষ্টির হানা দিলে ম্যাচ বন্ধ হয়। বেশ কিছুক্ষণ বৃষ্টি হয়। তবে বৃষ্টি থামায় আবারও খেলা শুরু হয়। মিলার ও ক্লাসেন মিলে বিপর্যয় সামাল দেন। ৯৫ রানের জুটি গড়েন এই দুই ব্যাটার। দলীয় ১১৯ রানে ৪৮ বলে ৪৭ রান করে আউট হন ক্লাসেন।

দক্ষিণ আফ্রিকা

তার বিদায়ের পরই ফিরে যান মার্কো জানসেন। এরপর ক্রিজে আসা জেরাল্ড কোয়ের্টজে নিয়ে ৫২ রানের জুটি গড়েন মিলার। দলীয় ১৭২ রানে ৩৯ বলে ১৯ রানে আউট হন কোয়ের্টজে। এরপর ক্রিজে এসেই ফিরে যান কেশব মহারাজ।

দক্ষিণ আফ্রিকা

একপ্রান্তে উইকেট হারালেও অন্যপ্রান্ত আগলে রেখে ১১৫ বলে সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন মিলার। সেঞ্চুরি পূর্ণ করেই আউট হন তিনি। ১১৬ বলে ১০১ রান করেন মিলার। শেষ ব্যাটার হিসেবে কাগিসো রাবাদী আউট হলে ২ বল বাকী থাকতে ২১২ রানে অলআউট হয় দক্ষিণ আফ্রিকা। অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে সর্বোচ্চ ৩টি করে উইকেট নেন মিচেল স্টার্ক ও প্যাট কামিন্স।

আরও পড়ুন

দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়ে ফাইনালে অস্ট্রেলিয়া

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button