সর্বশেষবিশেষ

ঢাকায় মহাসমাবেশ ২৮ অক্টোবর, ঘোষণা বিএনপির

সরকারের পদত্যাগের এক দফা দাবিতে মহাসমাবেশ আজ

ঢাকায় মহাসমাবেশ আগামী ২৮ অক্টোবর

ঢাকায় মহাসমাবেশের

আগামী ২৮ অক্টোবর ঢাকায় সাধারণ সভা করবে বিএনপি। সাধারণ সভা ঘোষণা করে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, আগামী ২৮ অক্টোবর শনিবার ঢাকায় সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হবে। প্রকাশ থেকে শুরু হবে মহাযাত্রা। সরকারের পতন না হওয়া পর্যন্ত আমরা থামব না। মহাসমাবেশকে ঘিরে অনেক বাধা আসবে। সম্মেলন সফল করার জন্য সকল বাধা অতিক্রম করতে হবে।

বুধবার (১৮ অক্টোবর) রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে এক মহাসমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন। সরকারের পদত্যাগ ও সংসদ ভেঙে দেওয়া, নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন এবং বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে এই সমাবেশ করেছে বিএনপি।

নেতাকর্মীদের উদ্দেশে ফখরুল বলেন, আপনারা এখান থেকে বের হয়ে বসে থাকবেন না। আপনারা ঘরে ঘরে গিয়ে বলবেন মানুষ জেগে আছে। এই জাগরণের কারণেই এই সরকারের পতন হবে।

সরকার ক্ষমতায় থাকার জন্য নানা কৌশল অবলম্বন করছে। তারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করে মানুষকে বিভ্রান্ত করছে। এটা মানুষকে বিভ্রান্ত করে না বলেও মন্তব্য করেন বিএনপি মহাসচিব।মহাসমাবেশ

তিনি সরকারের প্রতি পদত্যাগের আহ্বান জানান, তিনি বলেন, একটি নিরপেক্ষ, নির্দলীয় সরকারের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন আয়োজন করতে। সামনে আর কয়েকটা দিন আছে। সামনে পুজোর ছুটি। মাঝপথে সিদ্ধান্ত হয়। পদত্যাগ করুন এবং মর্যাদার সাথে ছুটি বাঁচান বা জনগণের দ্বারা বঞ্চিত হন।

ফখরুল বলেন, রাষ্ট্রপতি যখন দেশত্যাগ করেন, তখন তিনি কাউকে দায়িত্ব দেন। বর্তমান রাষ্ট্রপতি দেশ ত্যাগ করলেও কাউকে দায়িত্ব দেননি। এটা সম্পূর্ণ অসাংবিধানিক।

নির্বাচনকালীন বর্তমান সরকারের পদত্যাগ ও নির্দলীয় সরকারের দাবিতে মহাসমাবেশ ১২ জুলাই ‘এক ধাপ’ আন্দোলনের ডাক দেওয়া হয়। পরবর্তীতে অক্টোবরে নেতারা জানান, আন্দোলনকে ‘চূড়ান্ত পর্যায়ে’ নিয়ে যাওয়া হবে।

পরবর্তীতে 20 থেকে 24 অক্টোবর পর্যন্ত দুর্গাপূজার বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে পূজা শেষে বিএনপি ও সমমনা নেতারা ‘চূড়ান্ত’ আন্দোলন করার ঘোষণা দেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, আমরা শান্তিপূর্ণ কর্মসূচির মাধ্যমে এই ‘সন্ত্রাসী’ ও ‘সন্ত্রাসী’ আওয়ামী লীগের পতন ঘটাব, ইনশাআল্লাহমহাসমাবেশ

এ সময় তিনি স্লোগান তুলে বলেন, সিদ্ধান্ত হবে কোথায়? নেতাকর্মীরা সমস্বরে বলেন- রাজপথে, রাজপথে।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সমন্বয়ক মো. আব্দুস সালামের সভাপতিত্বে ও বিএনপি উত্তর মহানগর ঢাকার সদস্য সচিব মো. আরও বক্তব্য রাখেন আমিনুল হক ও বিএনপির দক্ষিণ ঢাকার ভারপ্রাপ্ত সদস্য সচিব লিটন মাহমুদ, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট শাহজাহান ওমর, বরকত উল্লাহ বুলু, রাষ্ট্রপতির উপদেষ্টা শামসুজ্জামান দুদু, ড. ফরহাদ হালিম ডোনার, হাবিবুর রহমান হাবিব প্রমুখ। , সহ-সাধারণ সম্পাদক রুহুল কবির রিজভী, সহ-সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকন, হাবিব উন নবী খান সোহেল প্রমুখ।

আরও পড়ুন
রাজনৈতিক সমঝোতা পরিস্থিতি ব্যবস্থা

একটি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button