সর্বশেষবিশেষ

ডেঙ্গু কেড়ে নিল সুকেনের প্রাণ এসআই পদে যোগ দেওয়ার আগে

ডেঙ্গু কেড়ে নিল এসআই পদে যোগ দেওয়ার আগে সুকেন বিশ্বাস

 ডেঙ্গু কেড়ে নিল এসআই পদে যোগ দেওয়ার আগে সুকেন বিশ্বাস (২৭) অবশেষে বাংলাদেশ পুলিশের ৪০তম ক্যাডেট সাব-ইন্সপেক্টর (এসআই) পদে সুপারিশপ্রাপ্ত হয়েছেন।

ডেঙ্গু কেড়ে নিল সুকেনের প্রাণ এসআই পদে যোগ দেওয়ার আগে

এসআই পদে কিন্তু প্রশিক্ষণে যাওয়ার আগেই তিনি ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে শনিবার রাতে গাজীপুর মেট্রোপলিটন, টঙ্গী পশ্চিম ৫১ ওয়ার্ড, খরতাইল হিন্দুপাড়া এলাকায় মারা যান। এসআই পদে নিহত সুকেন বিশ্বাস রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার চর বালিয়াকান্দি গ্রামের সুকুমার বিশ্বাসের ছেলে। লেখাপড়ার পাশাপাশি গাজীপুরের টঙ্গী এলাকায় একটি পোশাক কারখানায় কাজ করতেন সুকেন। ডেঙ্গু জ্বরে তার মৃত্যু হয়েছে বলে সুকেনের পরিবার নিশ্চিত করেছে। এসআই পদে যোগ দেওয়ার আগে
সুকেন বিশ্বাস ছবি: এসআই পদে যোগ দেওয়ার আগে

এসআই পদে সুকেনের চাচাতো ভাই অমিত বিশ্বাস জানান, সুকেনের বাবা একজন ফেরিওয়ালা। ডেঙ্গু কেড়ে নিল এসআই পদে যোগ দেওয়ার আগে  তারা নারী ও শিশুদের বিভিন্ন ধরনের প্রসাধনী বিক্রি করে। ছোটবেলা থেকেই দারিদ্র্যের সঙ্গে লড়াই করে সুকেন লেখাপড়া করেছেন।

ডেঙ্গু কেড়ে নিল  এসআই পদে ২০১৩ সালে রাজবাড়ী সরকারি কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করার পর গাজীপুরের টঙ্গী সরকারি কলেজে গ্রাজুয়েশনের জন্য ভর্তি হন সুকেন। পড়াশোনার খরচ মেটাতে তিনি টঙ্গীর একটি টেক্সটাইল কারখানায় চাকরি নেন। চাকরির পাশাপাশি পড়াশোনাও করেন।

অনেক সংগ্রাম ও প্রতিকূলতার পর গত শুক্রবার তাকে পুলিশের এসআই পদে সুপারিশ করা হয়।

ডেঙ্গু কেড়ে নিল এসআই পদে সুকেনের পরিবারের সদস্যরা জানান, সুকেন এক সপ্তাহ ধরে জ্বরে ভুগছিলেন।এসআই পদে যোগ দেওয়ার আগে তিন দিন ধরে জ্বরের সঙ্গে বমি ও ডায়রিয়া। অবস্থার অবনতি হলে শনিবার রাত ১টার দিকে তাকে উত্তরা ক্রিসেন্ট হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ডেঙ্গু কেড়ে নিল অমিত বিশ্বাস জানান, কর্তব্যরত চিকিৎসকের কাছে সুকেনের মৃত্যুর কারণ জানতে চাইলে তিনি জানান, জ্বর, বমি ও ডায়রিয়া ডেঙ্গুর প্রধান লক্ষণ। ডিহাইড্রেশন এবং কম প্লেটলেট কাউন্টের কারণে তিনি মারা যান। আজ দুপুর ১২টার দিকে গোলন্দ পৌরসভার কেন্দ্রীয় শ্মশানে তার শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়।

আরও পড়ুন

গাজীপুরে পিটিয়ে হত্যা,দুই ভাই নিহত,কারণ নিয়ে ভিন্ন বক্তব্য

 

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button