সর্বশেষআন্তর্জাতিক

গাজায় রাতারাতি ইসরায়েলি হামলায় শিশু ও নারীসহ ৪৬ জন নিহত

গাজায় রাতারাতি ইসরায়েলি হামলায় শিশু ও নারীসহ ৪৬ জন নিহত হয়েছে

ফিলিস্তিনি গাজায় রাতভর হামলা চালায় ইসরায়েলি বাহিনী। এই হামলায় নারী ও শিশুসহ অন্তত ৪৬ জন নিহত হয়েছেন।

গাজায়

শুক্রবার রাতে এ হামলা চালানো হয়।হামলায় জাবালিয়ার আল-মোতাওয়াক এলাকায় 24 জন এবং আল-আজরামিতে 10 জন নিহত হয়েছে। গাজা উপত্যকায় পাঁচজন নিহত হয়েছেন। এর মধ্যে চার শিশু ও এক নারী রয়েছে।

হামাস ও রাশিয়া একই, কাউকে জিততে দেব না: বিডেন

গাজায় যুদ্ধবিরতির দাবিতে যুক্তরাষ্ট্রের ক্যাপিটল হিলে বিক্ষোভ করেছে ইহুদিরা মধ্য গাজার দেইর আল-বালাহ এবং আল-বুরেজি শরণার্থী শিবিরেও হামলা চালায় ইসরাইল। এসব হামলায় আরও সাতজন নিহত হয়েছেন।

ইসরায়েলি বাহিনী বলছে, তারা গাজায় হামাস নিয়ন্ত্রিত স্থাপনায় হামলা চালিয়েছে। হামাসের অবস্থান, অ্যান্টি-ট্যাঙ্ক লঞ্চার এবং বিভিন্ন অবকাঠামোকে ইসরায়েলি বাহিনী লক্ষ্যবস্তু করে।

গাজায়

গত ৭ অক্টোবর ফিলিস্তিনের স্বাধীনতাকামী সংগঠন হামাস ইসরায়েলে হামলা চালায়। ইসরাইল সেদিন পাল্টা জবাব দেয়। এরপর থেকে ক্রমাগত নির্বিচারে হামলা চলছে। গাজা উপত্যকা ঘেরাও করা হয়েছে।

ফিলিস্তিনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, দুই সপ্তাহ ধরে গাজায় ইসরায়েলের নির্বিচার হামলায় ৪ হাজার ১৩৭ জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছেন ১৩ হাজারের বেশি মানুষ। 1,524 শিশু এবং 1,000 এরও বেশি নারী নিহত হয়।

হামাস কে, তারা কি চায়, কেন এই লড়াই?

গাজায়

ইনি হলেন হামাস হামলার ‘মাস্টারমাইন্ড’ মোহাম্মদ দেইফ।ইসরায়েল জানিয়েছে যে তাদের দেশে হামাসের সাথে হামলা ও সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা 1,400 ছাড়িয়েছে এবং 4,629 জন আহত হয়েছে। নিহতদের মধ্যে ৩৬৩ জন সেনা ও পুলিশ সদস্য রয়েছে।

ইসরায়েলি হামলার বিরুদ্ধে বিক্ষোভ এদিকে গাজায় নির্বিচার ইসরাইলি হামলার প্রতিবাদে শনিবার অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডে বিক্ষোভ হয়েছে।

এসব বিক্ষোভে হাজার হাজার মানুষ অংশ নেয়। অবিলম্বে হামলা বন্ধের দাবি জানান তিনি।
নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে প্রায় 15,000 মানুষ বিক্ষোভে অংশ নেয়। অস্ট্রেলিয়ার সিডনি, ব্রিসবেন ও পার্থে বিক্ষোভ হয়েছে।

আরও পড়ুন

ইসরায়েল-গাজা পরিস্থিতি নিয়ে ফোনে কথা বলেছে আমেরিকা ও চীন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button